অন্যান্য...

মহানবী (সঃ)কে নিয়ে কটূক্তি করায় শিক্ষক আটক

রংপুর মহানগরীর তাজহাট সরকারি কৃষি প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউটের শিক্ষক প্রভাত চন্দ্রকে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) সম্পর্কে অবমাননাকর বক্তব্য দিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ইসলাম সম্পর্কে বিভ্রান্তি ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) দুপুরে ক্যাম্পাস থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনার প্রতিবাদে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে।

সূত্রে জানা যায়, ১ এপ্রিল সোমবার সকালে ষষ্ঠ সেমিস্টারের ক্লাশ নেবার সময় সিনিয়র প্রশিক্ষক প্রভাত চন্দ্র শিক্ষার্থীদের পৃথিবীর ৫ মনীষীর মধ্যে মহানবী সাঃ কে জারজ সন্তান বলে উল্লেখ করেন।

এতে তাৎক্ষণিক শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ জানিয়ে অধ্যক্ষ বরাবর ওই শিক্ষকের ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দাবি জানান।

বিষয়টি মঙ্গলবার সকালে জানাজানি হলে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ইন্সটিটিউটের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ করতে থাকে।

একই সময়ে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী তাজহাট মোড়ে কুড়িগ্রাম-লালমনিরহাট মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে।

এতে মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

স্থানীয় এলাকাবাসী অভিযোগ করেন, প্রভাত চন্দ্র বর্মন বিশ্বের ৫ মনীষীর মধ্যে মহানবী (সাঃ) কে জারজ সন্তান বলে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছেন।

তিনি ক্লাস নেয়ার সময় শিক্ষার্থীদের বলেছেন, নবীর বাবা জন্মের ৩ বছর আগে মারা গেছেন, তাই তিনি জারজ। ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আইন করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

আমরা অবিলম্বে এই কুলাঙ্গারকে শুধু বদলি নয়, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

তাজহাট কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ কৃষিবিদ মোহাম্মদ আলী জানান, গত সোমবার ক্লাসে আমাদের সিনিয়র প্রশিক্ষক প্রভাত চন্দ্র বর্মন শিক্ষার মূলনীতি বিষয়ে একটি ভাবধারা পড়াচ্ছিলেন।

বিষয়টি উর্ধ্বতণ কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষক প্রভাত চন্দ্রকে আটক করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, মঙ্গলবার সকালে অফিসের শুরুতেই আমার কাছে তিনি (প্রভাত চন্দ্র) তার দোষ স্বীকার করেছেন। তিনি পঞ্চপাণ্ডব দিয়ে উদাহরণ দিতে গিয়ে হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর কথাও তুলেছেন।

আমি তাকে বলেছি যে স্পর্শকাতর বিষয়গুলো নিয়ে ভুল ব্যাখ্যা দেয়া ঠিক না। ইতোমধ্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবরে চিঠি দেয়া হয়েছে তাকে বদলি করার জন্য।

তাজহাট থানার ওসি শেখ রোকনুজ্জামান বলেন, মহানবীকে (সঃ) কটূক্তি করার অভিযোগে মৃত জয়কান্ত বর্মনের ছেলে প্রভাত চন্দ্র বর্মনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা দায়ের করা হচ্ছে।

বিক্ষোভের সময় লালমনিহাট ও কুড়িগ্রামের সাথে সারা দেশের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। পরে পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষক প্রভাত চন্দ্রকে আটক করার পর অবোরোধ তুলে নিলে সড়কে যান চলাচল শুরু হয়।

বিডি২৪লাইভ/এএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close