রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় আঞ্চলিক দলের দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে ৭ জন নিহত হয়েছে। আজ বুধবার (৩ এপ্রিল) দুপুরে রাজস্থলী উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

ধারণা করা হচ্ছে, আরাকান লিবারেশন পার্টি ও তাদের প্রতিপক্ষের মধ্যে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

এর আগে রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে নির্বাচনী দায়িত্ব পালন শেষে ফেরার পথে নির্বাচনকর্মীদের ওপর সশস্ত্র হামলায় অন্তত ৭ জন নিহত হন। এ সময় গুরুতর আহত হন আরও ১৬ জন।

দীঘিনালা-বাঘাইছড়ি সড়কের নয়মাইল এলাকায় এ সশস্ত্র হামলা হয়। এতে ঘটনাস্থলেই শিক্ষক মো. আমির হোসেন, ভিডিপি সদস্য আল আমিন, বিলকিস বেগম, মিহির কান্তি দত্ত ও জাহানারা বেগম এবং পথচারী মন্টু চাকমা নিহত হন।

ওই দিন সন্ধ্যায় বাঘাইছড়ি থেকে সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান আহত আবু তৈয়ব আলী।

নির্বাচনী কর্মীরা বাঘাইছড়ির সাজেক ইউনিয়নের দুর্গম কংলাক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাচালং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বাঘাইহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে সারা দিন দায়িত্ব পালন শেষে একসঙ্গে বিজিবি পাহারায় গাড়িবহর নিয়ে ফিরছিলেন তারা।

 

বিডি২৪লাইভ/এমআর